Mountain View
বিনা খরচে বানান বিদ্যুৎবিহীন এসি


প্রকাশ : জুন ৮, ২০১৬ , ২:১৩ অপরাহ্ণ
প্রথম সংবাদ ডেস্ক

আইটি প্রতিবেদক
ঢাকা: বর্ষা এলেও কমেনি গরমের দাপট। গরমের হাত থেকে রেহাই পেতে বৈদ্যুতিক পাখা ব্যবহারে ঠান্ডা হাওয়া পাওয়া যায়। স্বামর্থ্য অনুযায়ী কারো ঘরে ঠান্ডা হাওয়ার জন্য আছে এয়ার কন্ডিশন। কিন্তু দেশের সব প্রান্তে নেই বিদ্যুৎ। অন্য দিকে লেড শেডিংয়ের সময় এসব যন্ত্র কোনো কাজে আসে না। এই সমস্যার সমাধানে দেশের উদ্ভাবক আশিষ পাল এমন এক পদ্ধতি উদ্ভাবন করেছেন যার মাধ্যমে বিদ্যুৎ ও কোনো খরচ ছাড়াই বছরের পর পর ঠান্ডা হাওয়া পাওয়া যাবে।

আশিষের উদ্ভাবিত প্রযুক্তির নাম ‘ইকো কুলার’। এটা বানাতে লাগবে পুরাতন প্লাস্টিকের বোতল এব কক শিট। এটি বানানো খুবই সোজা। এজন্য বিশেষজ্ঞের সাহায্যের প্রয়োজন হবে না।

আষিষ পাল জানান, তিনি সিঙ্গাপুরভিত্তিক বিজ্ঞাপনী সংস্থা গ্রে গ্রুপে ক্রিয়েটিভ সুপারভাইজার হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে কর্মরত রয়েছেন। ছোট বেলা থেকেই তার উদ্ভাবনের নেশা ছিল। সেই ভাবনা থেকেই   প্লাস্টিকের বোতল দিয়ে স্বল্প খরচে এ বিদ্যুৎবিহীন ও পরিবেশবান্ধব এসি উদ্ভাবন করেছেন। তার এই উদ্ভাবনের পর গ্রে গ্রুপ কল্যাণমূলক কাজ হিসেবে গ্রামীণ বাংলার হাজার হাজার মানুষকে এই যন্ত্র তৈরি শেখানোর প্রকল্প হাতে নিয়েছে। বিনামূল্যে গ্রাম-বাংলার মানুষের ঘরে ঘরে এই প্রযুক্তি কাজে লাগানোর জন্য প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে।

এই এসির কার্যপ্রণালীর ব্যাখ্যাও দিয়েছেন তিনি সহজভাবে। মুখের সামনে হাত রেখে ভেতর থেকে ফু দিন। কি হবে? গরম বাতাস বের হবে। আবার মুখটিকে একটু সরু করে বাতাস ছাড়ুন। দেখবেন হাতে ঠান্ডা বাতাস লাগছে। বাতাসটি একই ভাবে আসলেও ফলাফল ভিন্ন। তিনি ঠিক এই সুত্রকেই কাজে লাগিয়েছেন।

সুইজারল্যান্ডের বিজ্ঞানী বার্নলির তত্ত্বের বাস্তব প্রয়োগ হয়েছে এই প্রক্রিয়ায়। বোতলটিকে মাঝ বরাবর কেটে সরু অংশটি থাকবে ঘরের ভেতরে। খোলা অংশটি থাকবে বাইরে। ফলে কি হবে? বেশি বাতাস প্রবেশ করবে কিন্তু বের হবে সরু মুখ দিয়ে। যার কারণে বাতাসের তাপমাত্রা কমে যাবে এবং রুমের ভেতরটাও শীতল হবে।

এভাবে বোতলগুলো কাগজের বোর্ডে সংযুক্ত করে কক্ষের জানালায় যুক্ত করে দিলেই রুমে প্রবেশ করবে ঠান্ডা বাতাস।  এই যন্ত্র দিয়ে ঘরের তাপমাত্রা ৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত কমিয়ে আনা যায়। যখন ৩০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রা কমে ২৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডে নেমে আসে তা মানুষকে স্বস্তি দেয়।

এই পদ্ধতি শহরের জন্য তেমন কার্যকর নয়। তবে গ্রামে, যেখানে বাইরে বেশি বাতাস থাকে কিন্তু বাসার ভেতর কম বাতাস থাকে, সেখানে ব্যবহার করার জন্য উপযোগী এই বিনামূল্যে নিজে তৈরি করার উপযোগী যন্ত্রটি।

বাংলাদেশে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ার প্রায় প্রতিটি ঘরেই ব্যবহৃত হচ্ছে এই ইকো কুলার। অন্যান্য অনেক গ্রামে ইন্টেল এবং গ্রামীণের যৌথ প্রচেষ্টায় প্রকল্পের মাধ্যমে তৈরি করা যন্ত্রগুলো বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে। গ্রামীণ-ইন্টেল যৌথভাবে এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

যা যা লাগবে

কয়েকটি প্লাস্টিকের খালি বোতল

ককশিট

কক শিট ও প্লাস্টিক গোল করে কাটার জন্য ছুড়ি কিংবা কাঁচি

যেভাবে করবেন

প্রথমে প্লাস্টিকের বোতল থেকে ছিপি খুলে নিন। বোতলের তলা কেটে নিন। এবার ছিপির মাঝ বরাবর গোল করে কাটুন। এবার ককশিটে নির্দিষ্ট দূরত্বে বোতলের ছিপির আকারে গোল করে কেটে নিন। এবার

ককশিটে বোতলগুলো লাগিয়ে অপর প্রান্তে ছিপি লাগান। ঘরের জানালায় বসান এই ককশিট। জানালা দিয়ে ঠান্ডা বাতাস পাবেন।



পুরোন সংবাদ দেখুন

সর্বাধিক পঠিত

প্রকাশকঃ মোহাম্মাদ রাজীব ।
সম্পাদকঃ মোস্তফা জামান (মিলন)
প্রধান নির্বাহী সম্পাদকঃ এ এম জুয়েল ।
মোবাইলঃ ০১৭১১৯৭৯৮৪৩
prothomsangbadbd@gmail.com

অফিসঃ প্রথম সংবাদ ডট কম
এক্সট্রিম আনলক, ফাতেমা সেন্টার
দোকান নং ৩১৪, ৪র্থ তলা (বিবির পুকুর পশ্চিম পাড়)
৫২৩ সদর রোড, বরিশাল - ৮২০০
বাংলাদেশ ।

© প্রথম সংবাদ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি Design & Developed By: Eng. Zihad Rana
Copy Protected by ENGINEER BD NETWORK