Mountain View
অবশেষে চাঁমারী চরআইচা ফেরিঘাট ও খেয়া ঘাটের ইজারা সম্পন্ন


প্রকাশ : জুলাই ২৬, ২০১৬ , ৬:৫৪ অপরাহ্ণ
প্রথম সংবাদ ডেস্ক

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বহু জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে বরিশালের চাঁদমারী চরআইচার ফেরিঘাট  খেয়া ঘাটটির সুষ্ঠ ইজারা সম্পাদন হয়েছে। দির্ঘ দুই  বছর একটি মহল ঘাটটি দখলে রেখে রাজত্ব কায়েক করে আসছিল। এতে করে সরকারের লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব ফাকি দেয়া হয়েছে। গতকাল বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌ পরিবহন (বিআইডব্লিউটিএ) এর কর্মকর্তা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের উপস্থিতিতে টেন্ডার জমা দেয়া হয়। এতে বরিশালের বিভিন্ন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। এর মধ্যে বউিন্সিলর এটিএম শহীদুল্লাহ কবীর ঘাটটি ইজারার জন্য দরপত্র জমা দেন। তিনি ইজারার জন্য ১৫ লক্ষ ২০ হাজার টাকা, নিরব হোসেন টুটুল ১৪ লক্ষ টাকা, উত্তর কবাই লঞ্চ ঘাট এর তপন কুমার ১৫ হাজার টাকা, মোঃ মানিক সরদার ১৮ লক্ষ ৫২ হাজার টাকা এবং জাহিদ স্টোর কোন টাকার অংক দেননি। এতে সর্বচ দরদাতা হিসেবে মানিক সরদার ১৮ লক্ষ ৫২ হাজার টাকা ঘাট ইজারা পান। এদিকে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌ পরিবহন (বিআইডব্লিউটিএ) গতকাল বরিশালের চাঁদমারী চরআইচার ফেরিঘাট  খেয়াঘাটটি ইজারার জন্য দরপত্র আহবান করে। দুপুর ২টার দিকে টেন্ডার বক্স খোলা হয়। দরপত্র আহবানকে কেন্দ্র করে বরিশাল বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌ পরিবহন (বিআইডব্লিউটিএ) তে অকিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়। এর আগে কেন ঐ ঘাটটি ইজারা দেয়া যাচ্ছেনা এমন প্রশ্নের জবারের বিআইডব্লিউটিএ এর কর্মকর্তা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছিলেন টেন্ডার আহবান করা সত্বেও কেউ সিডিউল পর্যন্ত কিনতে আসেনি। তাই মাত্র ৪০ জাহার টাকার বিনিময়ে ১ মাসের চুক্তিতে ঘাটটি আ’লীগ নেতা মোতালেরে কাছে দেয়া হয়েছে। জানাযায়, বরিশালে এক উদীয়মান রাজনৈতিক নেতার নাম ভাঙ্গিয়ে খেয়া ঘাট দখল করে রেখেছে আওয়ামীলীগের নেতা এস এম হুমায়ুন কবীর মোতালেব ও তার পুত্র রকি। । প্রায় দুই বছর যাবৎ ঘাটটি দখলে নিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এই নামধারী আ’লীগ নেতা।  মোতালেবের মতলববাজীতে পরাজিত হতে হয় বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌ পরিবহন (বিআইডব্লিউটিএ) এর কর্মকর্তাকেও। এদিকে সংবাদ প্রকাশ করতে গেলে মাসের কথা অস্বিকার করে এস এম হুমায়ুন কবীর মোতালেব এর অনুসারীরা বলছে, আমরা ঘাট ইজারা নিয়েছি। তারা এও বলছে মোটা অংকের টাকা দেই আ’লীগের এক নেতাকে। আর প্রশাসন , সাংবাদিককে প্রতিমাসে মাসহারা দিয়েই ঘাট দখল নিয়েছি। জানাগেছে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে বরিশাল জেলায় ১৯টি ঘাটের টেন্ডার আহবান করা হয়। এর মধ্যে সবগুলোর টেন্ডর হলেও শুধুমাত্র চরআইচা খেয়াঘাটটির কোন ইজারা দেয়া হয়নি। নৌ কর্মকর্তা এও বলছে ঐ ঘাটের জন্য কোন সিডিউলও বিক্রি হয়নি। কোন রাজনৈতিক নেতার ইন্দোনে ঘাটটি ইজারা ছাড়াই চলছে। এবিষয়ে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌ পরিবহন কর্মকর্তা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছিলেন, আমরা বেশ কয়েকবার এই ঘাটের ইজারা ডেকেছি। কিন্তু কেউই ইজারা নিতে রাজি হয়নি। পরবর্তীতে ১মাসের চুক্তিতে ঘাটটি এস এম হুমায়ুন কবীর মোতালেব এর কাছে দেয়া হয়েছে। ঘাট নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করার কথা শুনে চরআইচা চাঁদমারী খেয়া ঘাটের প্রায় ৫২টি ট্রলার চলাচল বন্ধ করে দেয় মোতালেব ও তার পুত্র রকি। এমন খবরে স্থানীয় সংবাদ কর্মীরা চরআইচা খেয়া ঘাটে ছবি ও সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে ট্রলার চালকরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করে। এর কিছুক্ষন পরই মানব বন্ধন করার অপরাধে ট্রলার চালকদে উপর হামলা চালায় মোতালেব ও তার রকির অনুশারীরা। এতে প্রায় ৫ ট্রলার চালাক আহত হয়। শ্রমিকরা জানায় মোসারফ ,সুমন আনিচ মিলে তাদের উপর হামলঅ চালিয়ে হানিফ কারিকর নামের এক বৃদ্ধকে আহত করে। অপরদিকে ট্রলার বন্ধ করে দেয়ায়, ৫২টি ট্রলার চালক ও কর্মচারী না খেয়ে দিন পার করে দিচ্ছে। ট্রলার চালক মোঃ নাছির জানান, আমরা শুক্রবার রাতে সেরনিয়াবাদ সাদিক আব্দুল্লাহর কাছে গিয়েছিলাম। কিন্তু তিনি কোন সমাধান দেননি। আমরা অনেক আশা নিয়ে তার তাকে গিয়েছিলাম। এবিষয়ে ট্রলার চালক মোঃ ইব্রহিম, মোঃ হানিফ, মোঃ মামুন,মোঃ রাসেল, মোঃ তোফায়েল জানান, প্রতিদিন গড়ে ৩০ থেকে ৩৫টি ট্রলার লোক পারাপার করে। দিন প্রতি মোতালেবকে দিতে হয় ১৫০ থেকে ২০০ টাকা। এর মধ্যে ঘাট বাবদ তারা যাত্রীদের কাছ থেকে নেয় ২টাকা আর ভারী মালামাল বহন করতে গেলে দিতে হয় অনেক বেশী টাকা। জানাযায়, নদীতে থামিয়ে রাখা কার্গো থেকে প্রতিদিন তারা ৭০০ টাকা করে নেয়। আর আমরা ট্রলার নিয়ে কার্গোর কাছে ভিরলে সেখানেও বাড়তি ২শ টাকা করে দিতে হয়। যার ফলে বর্তমানে এই ঘাটে কার্গো আসা কমে গেছে। এখানে মাল খালাস খুব কম হয়। ওরা আমাদের জিন্মি করে নিজেদের মত চালাচ্ছে। আমরা মুক্তি পথ খুজছিলাম। সাবেক মেয়র শওকত হোসেন হিরন আমাদের সেই মুক্তি দিয়েছিল কিন্তু এখন মনে হচ্ছে আমারা গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলে আছি।



পুরোন সংবাদ দেখুন

সর্বাধিক পঠিত

প্রকাশকঃ মোহাম্মাদ রাজীব ।
সম্পাদকঃ মোস্তফা জামান (মিলন)
প্রধান নির্বাহী সম্পাদকঃ এ এম জুয়েল ।
মোবাইলঃ ০১৭১১৯৭৯৮৪৩
prothomsangbadbd@gmail.com

অফিসঃ প্রথম সংবাদ ডট কম
এক্সট্রিম আনলক, ফাতেমা সেন্টার
দোকান নং ৩১৪, ৪র্থ তলা (বিবির পুকুর পশ্চিম পাড়)
৫২৩ সদর রোড, বরিশাল - ৮২০০
বাংলাদেশ ।

© প্রথম সংবাদ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি Design & Developed By: Eng. Zihad Rana
Copy Protected by ENGINEER BD NETWORK