Mountain View
ছাত্রী নির্যাতন এর ঘটনায় সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মানববন্ধন


প্রকাশ : অক্টোবর ৮, ২০১৬ , ১:১৮ অপরাহ্ণ
প্রথম সংবাদ ডেস্ক

প্রথম সংবাদ ডেস্ক ॥ বখাটেদের হাতে ছাত্রী নির্যাতন প্রতিরোধে সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টিতে দু’দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।
দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আগামী ১৮ অক্টোবর মানববন্ধন ও ২০ অক্টোবর সভা হবে।
রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে শনিবার (৮ অক্টোবর) শিক্ষামন্ত্রী এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। ছাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পদক্ষেপ সম্পর্কে এ প্রেস ব্রিফিংয়ের আয়োজন করা হয়।
ছাত্রী নির্যাতন প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টিতে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একটি করে কমিটি গঠন করা হবে বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী।
মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের ছাত্রীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আসা-যাওয়ার পথে, এমনকি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও আক্রমণের শিকার হচ্ছে। যে বিষয়টি আমরা কখনও মেনে নিতে পারি না। পর পর এ ঘটনাগুলো আমাদের খুবই উগ্বিগ্ন করে তুলেছে।
যারা এ ঘটনাগুলো ঘটাচ্ছে তারা সমাজের শত্রু, দুষ্কৃতিকারী, এরা খুনী, এরা বিকৃত মানসিকতায় গড়ে উঠছে। এরা প্রকৃত অর্থে মানুষ নামধারী পশু।’
এ ধরণের মানসিকতা সামাজিকভাবে প্রতিহত করা না গেলে ছাত্রী নির্যাতন নির্মুল করা কঠিন জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, গভর্নিং বডি, এলাকাবাসী, আলেম-ওলামাসহ সমাজের সকল স্তরের মানুষের মিলিতভাবে এদের প্রতিহত করতে হবে।’
এ লক্ষ্যকে সামনে রেখে প্রাথমিকভাবে দু’দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আগামী ১৮ অক্টোবর সারাদেশব্যাপি সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রতীকী হিসেবে ১৫ মিনিটের মানববন্ধন হবে। এ মানববন্ধনের মাধ্যমে সকল শিক্ষার্থী হাতে হাত ধরে নিহত ছাত্রীদের প্রতি শ্রদ্ধা ও আহতদের জন্য প্রার্থনা করবে। ওই সব মানুষরূপী পশুদের যাতে বিচার হয় সেজন্য আমরা হাতে হাত ধরে শপথ নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে এ সামাজিক আন্দোলন ও প্রতিরোধ গড়ে তোলার প্রক্রিয়া শুরু করবো।’
নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ‘এরপর ২০ অক্টোবর সকল মানুষকে সম্পৃক্ত করে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সভা করবো । সেই সভায় ওই অঞ্চলে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি নির্ধারণ করা হবে। তারা চারপাশে প্রচারণা চালাবেন।’

ছাত্রীদের উপর নির্যাতনের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ ও আন্দোলন গড়ে তুলবার এটা প্রথম সূচনা জানিয়ে নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ‘সেখানে আমরা একটা কমিটিও করবো। যে কমিটির মাধ্যমে তারা নিয়মিত এ কার্যক্রম করতে পারেন। যার প্রতি কোন সন্দেহ হবে, অভিযোগ হবে তাকে ডেকে নিয়ে এসে শোধরানোর চেষ্টা করা হবে। যদি শোধরানোর বাইরে চলে যায় অবশ্যই তাকে আইনের হাতে সোপর্দ করা হবে।’

‘যদি তাকে না পাওয়া যায় তার বাবা-মাকে আমরা ওই কমিটির মাধ্যমে অভিযুক্ত করবো, তারা সন্তানকে আইনের হাতে তুলে দিতে বাধ্য হবেন। বাবা-মা সবাইকেও আমরা আহ্বান জানাচ্ছি, আপনার সন্তান যাতে নষ্ট না হয়ে যায় সে বিষয়ে সতর্ক হোন’ বলেন শিক্ষামন্ত্রী।
কমিটি গঠনের বিষয়ে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘ওখানকার কোন মুরব্বী বা হেড মাস্টারকে দিয়ে বা অধ্যক্ষ বা অন্য কাউকে আহ্বায়ক করে যে কোন ফর্মে কমিটি গঠন করতে পারেন। শুরু করলে, বুঝতে পারব…আমরা তাদের কাছ থেকেও ফিডব্যাক নেব। যেভাবে হলে ভাল হয় সেভাবে করতে বলবো।’
উল্লেখ্য, ঢাকার উইলস লিটল ফ্লাওয়ারের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী রিশা গত ২৪ আগস্ট এক যুবকের ছুরিকাঘাতে আহত হয়। তিনদিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। গত ১৮ সেপ্টেম্বর মাদারীপুরে নবম শ্রেণির ছাত্রী নিতু মণ্ডলকে কুপিয়ে হত্যা করে মিলন মণ্ডল নামের এক বখাটে। গত ৩ অক্টোবর সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা বেগম নার্গিসকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে আহত করে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলম। খাদিজা স্কয়ার হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন।
শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, ‘জাতীয় সংসদের সমাপ্তি অধিবেশেনে প্রধানমন্ত্রী এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ, আহতদের চিকিৎসা দেওয়া-যা যা হওয়া উচিত সব বিষয়ে তিনি নির্দেশনা দিয়েছেন। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই এসব খুনীদের যারা গ্রেফতার হয়েছেন বা গ্রেফতার হন নাই তাদের সবাইকে অবিলম্বে আইনের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। অতি দ্রুত কঠোর শাস্তি দিতে হবে। যে শাস্তি সবাইকে আশ্বস্ত করবে যে, এগুলো করে পার পাওয়া যায় না।’

তিনি বলেন, ‘যারা এ সব করেছে তারা কোন দলের পরিচয় দিয়ে রক্ষা পাবে না। অপরাধী অপরাধীই, তাকে বাঁচানোর কোন সুযোগ নেই। কেউ চেষ্টাও করবে না। প্রধানমন্ত্রী পার্লামেন্টে এটা স্পষ্ট করে বলেছেন। প্রধানমন্ত্রীর এ নির্দেশ আমাদেরও বক্তব্য। কাউকে আমরা রেহাই দিতে পারব না। আশা করি প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের পর কোথাও কেউ তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে শঙ্কা ও দ্বিধা বোধ করবেন না।’

ছাত্রী নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী।



পুরোন সংবাদ দেখুন

সর্বাধিক পঠিত

প্রকাশকঃ মোহাম্মাদ রাজীব ।
সম্পাদকঃ মোস্তফা জামান (মিলন)
প্রধান নির্বাহী সম্পাদকঃ এ এম জুয়েল ।
মোবাইলঃ ০১৭১১৯৭৯৮৪৩
prothomsangbadbd@gmail.com

অফিসঃ প্রথম সংবাদ ডট কম
এক্সট্রিম আনলক, ফাতেমা সেন্টার
দোকান নং ৩১৪, ৪র্থ তলা (বিবির পুকুর পশ্চিম পাড়)
৫২৩ সদর রোড, বরিশাল - ৮২০০
বাংলাদেশ ।

© প্রথম সংবাদ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি Design & Developed By: Eng. Zihad Rana
Copy Protected by ENGINEER BD NETWORK