Mountain View
গলাচিপায় পল্লী বিদ্যুতের ভয়াবহ লোডশেডিং কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে গ্রাহকদের নানা অভিযোগ


প্রকাশ : জুন ১০, ২০১৭ , ৮:৫৩ অপরাহ্ণ
প্রথম সংবাদ ডেস্ক

গলাচিপা প্রতিনিধি
গলাচিপা পৌর এলাকাসহ উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে পল্লী বিদ্যুতের ভয়াবহ লোডশেডিং চলছে। এ কারণে ব্যবসা, বাণিজ্য ও জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। ভোগান্তিতে পড়েছে স্কুল-কলেজে অধ্যয়নরত ছাত্র-ছাত্রী, শিশুসহ ক্ষুদ্র , মাঝারি শিল্পোদ্যোক্তারা। বিদ্যুৎ নিয়ে গ্রাহকরা কথা বললে পল্লী বিদ্যুতের কর্মকর্তারা ক্ষারাপ আচরণ করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গলাচিপা শহরের আনন্দপাড়া, রুপনগর, টিএনটি, আরৎপট্টি, কলেজপাড়া, চরখালী, মুরাদনগর, ইটবাড়িয়া, ফুলখালী, উলানিয়া, পানপট্টি, গজালিয়া, চিকনিকান্দি, আমখোলাসহ আশেপাশের গ্রাহকদের সাথে আলাপ করে জানা গেছে, বিগত প্রায় দুই মাস যাবৎ সকাল থেকে শুরু করে একটু পর পর বিদ্যুতের লোডশেডিং চলছে। দিনে প্রায় ১৫ বার বিদ্যুৎ আসা যাওয়া করে। এর ফলে গ্রাহকদের মাঝে চরম ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। বিদ্যুৎ দেয়া ও নেয়ার কারণে ইলেক্ট্রিক যন্ত্রপাতি নষ্ট হয়ে গ্রাহক ও ব্যবসায়ীগণ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এদিকে পল্লী বিদ্যুতের জরুরি মুঠোফোনে আলাপ করলে অপর প্রান্তে কর্মকর্তারা গ্রাহকদের সাথে খারাপ আচরণ করেন বলে একাধিক গ্রাহক অভিযোগ করেছে। বেশি কল দিলে মোবাইল ফোনটি বন্ধ করে রাখেন। লোডশেডিংয়ের এ নাজুক পরিস্থিতিতে প্রশাসন নির্বিকার দেখে সাধারণ মানুষের মধ্যে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। গত ৩/৪দিন যাবৎ দিনে প্রায় ১৫ বার বিদ্যুৎ আসা-যাওয়া করে। পল্লী বিদ্যুৎ অফিস সূত্রে জানা যায়, বিভিন্ন কাজের কারণে ঘন ঘন বিদ্যুৎ নেয়া ও দেয়া হচ্ছে। তাদের এ বিভিন্ন কারণ কী এ নিয়ে শহরবাসীর মনে নানা প্রশ্ন ও ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। পল্লী বিদ্যুতের একাধিক গ্রাহক সোহাগ রহমান, মোঃ মন্নান, সরদার মোঃ শাহআলম, সজল, মোঃ কামাল জানান, গলাচিপাতে বিদ্যুতের লোডশেডিং এক স্থায়ী যন্ত্রণার নাম। এই যন্ত্রণা ও অত্যাচারে সবচাইতে বেশি কাহিল গলাচিপা পৌরসভার মানুষগুলো। গলাচিপা পল্লী বিদ্যুতের অসহনীয় ভয়াবহ লোডশেডিংয়ে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। বিদ্যুতের এই লোডশেডিংয়ের ফলে জনজীবনে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বিদ্যুৎ এই থাকে, এই নাই। দীর্ঘক্ষণ পরে যেই আসে, মুহূর্তের মধ্যেই চলে যায়। আর নিয়মনীতির কোনো বালাই নেই। সারা দিন-রাত অসহনীয় বিদ্যুতের লোডশেডিং ও লুকোচুরি চলছে অন্তহীন। এই যাওয়া আসার খেলা চলছে গলাচিপা শহরসহ পুরো গলাচিপা উপজেলায়। গলাচিপা উপজেলার গ্রামাঞ্চলগুলোতে নতুন লাইনে বিদ্যুৎ থাকে না বললেই চলে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রায় ১৬ ঘণ্টাই বিদ্যুৎবিহীন থাকতে হয়। এছাড়া ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিদ্যুৎ না থাকায় ব্যবসায়ীদেরও চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ধস নেমেছে। বেশ ক’জন গ্রাহক মোঃ মারুফ, সোহাগ, মোঃ ইমন  জানান, পল্লী বিদ্যুতের ঘন ঘন লোডশেডিংয়ের ফলে ব্যবসায় ধস নেমে এসেছে এবং বিদ্যুৎ নির্ভর যন্ত্রপাতি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। লেখাপড়ায় বির্ঘন সৃষ্টি হচ্ছে স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের। এদিকে ইফতারের সময় এবং তারাবির নামাজের সময় বিদ্যুতের ভেলকিবাজিতে গলাচিপার লোকজন পল্লীবিদ্যুতের উপর এখন অতিষ্ট। কবে নাগাদ শেষ হবে এই ভেলকিবাজি জানাতে চায় গ্রাহক। দেশের জনসংখ্যার প্রায় ৮০ ভাগের বসবাস গ্রামে হলেও তারা নাগরিক সুযোগ-সুবিধা পায় সামান্যই। অন্ন, বস্ত্র, শিক্ষা, চিকিৎসা, বাসস্থানসহ মৌলিক চাহিদাগুলো তারা কতটুকু ভোগ করতে পারছে তা ভেবে দেখা দরকার। দেশের এই বিশাল জনগোষ্ঠী গ্রামে বাস করলেও তারা যার যার অবস্থান থেকে দেশের অর্থনীতিতে বিশাল ভূমিকা রাখছে।  গ্রামের এই জনপদের বেশির ভাগ মানুষ কৃষি নির্ভর হলেও অন্যান্য ক্ষেত্রে তারাও পিছিয়ে নেই। কেউ স’মিল, কেউ মটর গ্যারেজ, কেউ লেদ মেশিনের ওয়ার্কশপ, কেউ গ্রীলের ওয়ার্কশপসহ নানান ছোটখাট শিল্প কারখানা গড়ে তুলে তাদের জীবিকা নির্বাহ করতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু শুধু বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ের কারণে সবখানে নেমে এসেছে স্থবিরতা। বর্তমানে কি শহর, কি গ্রাম সবখানে কল-কারখানা গড়ে উঠেছে বিদ্যুৎ নির্ভর। তাই দিনের বেশির ভাগ সময় বিদ্যুৎ না থাকায় এরা সময় মত গ্রাহকদের মালামাল সরবরাহ করতে না পারায় তাদের আয়-রোজগার কমে যাওয়াতে অনেক শ্রমিক বেকার হয়ে পড়ছে। লোডশেডিং দীর্ঘস্থায়ী হওয়াতে গ্রামের হাট-বাজারগুলোতে হোটেল-রেস্তোরাঁ ও অন্যান্য প্রসাধনী সামগ্রীর দোকানগুলোতেও বেচা-বিক্রি কমে গেছে।



পুরোন সংবাদ দেখুন

প্রকাশকঃ মোহাম্মাদ রাজীব ।
সম্পাদকঃ মোস্তফা জামান (মিলন)
প্রধান নির্বাহী সম্পাদকঃ এ এম জুয়েল ।
মোবাইলঃ ০১৭১১৯৭৯৮৪৩
prothomsangbadbd@gmail.com

অফিসঃ প্রথম সংবাদ ডট কম
এক্সট্রিম আনলক, ফাতেমা সেন্টার
দোকান নং ৩১৪, ৪র্থ তলা (বিবির পুকুর পশ্চিম পাড়)
৫২৩ সদর রোড, বরিশাল - ৮২০০
বাংলাদেশ ।

© প্রথম সংবাদ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি Design & Developed By: Eng. Zihad Rana
Copy Protected by ENGINEER BD NETWORK